পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো জীবাশ্ম বনের সন্ধান!
বিশেষ সংবাদদাতা
ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯, ৬:১৫ অপরাহ্ণ

পৃথিবীতে প্রায় জীবনের সূচনালগ্ন থেকেই উদ্ভিদের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এইসব উদ্ভিদরাজির সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে নয়নাভিরাম বন। এই বনের অধিকাংশই বহু পুরোনো। পুরোনো বনের তালিকায় প্রথম দিকে স্থান দেওয়া যায় অস্ট্রেলিয়ার তাসমানিয়ায় অবস্থিত ৩০০ মিলিয়ন বছরের পুরোনো দ্য টার্কাইন বনকে। এছাড়াও চিলির অ্যারাকুয়েরিয়া বনের কথা জানা যায়। যার বয়স এক হাজার বছর। জাপানের ইয়াকুশিমা বনের বয়স খুব বেশি না হলেও ৭ হাজার বছরের পুরোনো।

তবে পূর্বে জানা সকল পুরোনো বনের চেয়ে অধিক পুরোনো বনের অস্তিত্বের প্রমাণ পেয়েছেন গবেষকরা। বনটির অবস্থান ছিল নিউ ইয়র্কে। গবেষকরা একটি পরিত্যক্ত খনিতে উদ্ভিদের জীবাশ্ম খুঁজে পান। যা থেকে তারা বলেন সেখানে বনের অস্তিত্ব ছিল। আর খুঁজে পাওয়া উদ্ভিদ জীবাশ্মের বনটির বয়স হচ্ছে ৩৮৫ মিলিয়ন বছর। যা এ পর্যন্ত জানা সবগুলো জীবাশ্ম বনের চেয়ে পুরোনো বন।

কারেন্ট বায়োলজিতে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে গবেষকরা বলছেন, জীবাশ্মের শিকড়, পাতার ছাপ এমনভাবে পাওয়া যায়, যা বর্তমান সময়ের গাছপালায় যেমন দেখা যায় তেমনই। ফসিলটি যেখানে পাওয়া যায় সেটি যুক্তরাষ্ট্রের আলবানি প্রদেশের প্রায় ৬৪ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত।

এ পর্যন্ত তিনটি জীবাশ্ম বনের কথা জানা যায়। তন্মধ্যে পূর্বে বিজ্ঞানীরা ধারণা করতেন নিউ ইয়র্কের গিলবোয়াতে প্রাপ্ত জীবাশ্ম বনটিই সবচেয়ে পুরোনো। কিন্তু বর্তমানে জানা যায়, কায়রোতে প্রাপ্ত জীবাশ্মটি গিলবোয়ায় প্রাপ্ত জীবাশ্মের চেয়ে কমপক্ষে ২ থেকে ৩ মিলিয়ন বছরের পুরোনো। এছাড়াও এটি গিলবোয়ায় প্রাপ্ত জীবাশ্মের চেয়ে অনেক ভিন্ন। কায়রো হচ্ছে নিউ ইয়র্কে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের একটি ছোট শহর।

নিউ ইয়র্কের রাষ্ট্রীয় জাদুঘরের এক ব্যক্তি প্রথম খনির পাদদেশে মূলের মতো গঠন দেখতে পান। গবেষণাপত্রের সহলেখক যুক্তরাজ্যের কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যালিওবোটানিস্ট ক্রিস্টোফার বেরি সন্দেহের বশেই সেখানে ভ্রমণ করেন। তিনি মনে করেছিলেন বর্তমানকালেই হয়তো শিলায় জন্মানো গাছ কাটার পর মূল রয়ে গেছে। কিন্তু নিবিড়ভাবে মাটির গঠনচিত্র দর্শনের পর গবেষকরা দ্রুত নিশ্চিত হন যে তারা অনেক বেশি বয়স্ক কোনোকিছুর ছাপ দেখছেন।

গবেষণাপত্রের প্রধান লেখক উইলিয়াম স্টেইনের মতে, নিঃসন্দেহে গাছের মূলের চিত্র খুবই আকর্ষণীয় ছিল। পরবর্তীতে তার দলের সকলে খুবই যত্নের সাথে মাটির আস্তর সরিয়ে ফেলে নিখুঁতভাবে অসাধারণ চিত্র তুলতে সক্ষম হন।

গবেষকরা সেখানে ইয়োস্পার্মাটোপটেরিস উদ্ভিদের মূলের গঠন খুঁজে পান। ইয়োস্পার্মাটোপটেরিস উদ্ভিদ হচ্ছে বর্তমান সময়ে আমাদের পরিচিত ফার্ন, হর্সটেইল এবং ক্লাব মসের মতো। গবেষকরা মনে করেন ভয়াবহ বন্যার কারণে সেখানকার বনের উদ্ভিদ মারা গিয়েছিল। আর মারা যাওয়ার পর মূলগুলো জীবাশ্ম হিসেবে সংরক্ষিত হয়েছিল। এই ধারণার পিছনের অবশ্য যৌক্তিক কারণও রয়েছে। কারণ খুব কাছেই তারা মাছেরও জীবাশ্মের সন্ধান পেয়েছেন।

গবেষকদের মতে, প্রাপ্ত জীবাশ্ম উদ্ভিদবিহীন পৃথিবী ও উদ্ভিদযুক্ত পৃথিবীর মধ্যকার রূপান্তরের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে। কায়রোতে প্রাপ্ত এই জীবাশ্ম বন ডায়নোসরের আবির্ভাবেরও প্রায় ১৪০ মিলিয়ন বছর পূর্বে ছিল। ডেভোনিয়ান যুগে (৪১৯ থেকে ৩৫৯ মিলিয়ন বছর পূর্বে) কায়রো বন বিষুবরেখার ৩০ ডিগ্রি দক্ষিণে অবস্থিত ছিল। সময়টা ছিল নাতিশীতোষ্ণ ও শুষ্ক জলবায়ুর মাঝামাঝি। সেই সময় কীভাবে গাছপালা পরিবেশের কার্বন-ডাই-অক্সাইড হ্রাস করেছিল তা বোঝা যায়। যার ফলে পরিবেশ খুবই শীতল হয়ে পড়ে ও ডেভোনিয়ান যুগের অবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র : সিএনএন, সায়েন্স অ্যালার্ট, দ্য গার্ডিয়ান

আপনার মতামত লিখুন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন বড় বোন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন তিনি।

ঢাকা অফিস

প্রধান সম্পাদক : সাইফুল্লাহ সাদির

১৬৩/৪ দেওয়ান পাড়া , ভাষানটেক , ঢাকা-১২০৬

+৮৮ ০১৭৪৫৪১১১৮৭ , +৮৮ ০১৭১২৪১১৩৭৮

jonokonthonews@gmail.com

কুষ্টিয়া অফিস

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সেলিম তাক্কু

আল- আমীন সুপার মার্কেট, ২য় তলা, পূর্ব মজুমপুর, কুষ্টিয়া,

+৮৮ ০১৭৪৫৪১১১৮৭ , +৮৮ ০১৭১২৪১১৩৭৮

jonokonthonews@gmail.com

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | জনকণ্ঠ নিউজ.কম
Powered By U6HOST