চিড়া-মুড়ি-কম্বল নিয়ে গণসমাবেশে বিএনপির নেতাকর্মীরা

ছবি সংগ্রহীত
খালেদা জিয়ার মুক্তি, নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারসহ বিভিন্ন দাবিতে বিএনপি দেশের প্রতিটি বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশ করছে। শনিবার (২৯ অক্টোবর) রংপুর কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে চতুর্থ গণসমাবেশের আয়োজন করছে দলটি।

বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশের দুই দিন আগে রংপুরে ৩৬ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে রংপুর জেলা বাস মালিক সমিতি। শুক্রবার ভোর ছয়টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে। যদিও ধর্মঘটের কারণ হিসেবে মহাসড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধসহ কয়েকটি দাবির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে বিএনপি’র নেতাদের অভিযোগ, ২৯ অক্টোবর রংপুরে বিএনপি’র সমাবেশ বাধাগ্রস্ত করতে, এই ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। বগুড়া থেকেও রংপুর বিভাগের ১০টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে জেলার পরিবহন মালিকরা।

এদিকে ধর্মঘটের কথা ভেবে আগেভাগেই রংপুর আসতে শুরু করেছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা।সকল বাধা উপেক্ষা করে যেকোনো উপায়ে গণসমাবেশ সফল করতে অনেকে শুক্রবার রাতেই রংপুরে চলে এসেছেন বলে জানান দলের নেতারা। অবস্থান নিয়েছেন সমাবেশস্থলে।

আশেপাশের কয়েকটি জেলা ও উপজেলা থেকে আসা দলের কর্মীরা জানান, আগের সমাবেশগুলোকে বাধাগ্রস্ত করতে পরিবহন ধর্মঘট ডাকা হয়েছিল এবারও এমনটি হতে পারে ভেবে আগেভাগেই আমরা চলে এসেছি।অনেককেই সঙ্গে করে চিড়া-মুড়ি-গুড়-কম্বল নিয়ে আসতে দেখা গেছে।তারা বলছেন সরকারের কোন বাধায় সমাবেশকে বানচাল করতে পারবে না।
সূত্র আর টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *