৭০০ রিকশা-ভ্যানে রংপুরে যাচ্ছেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা

‘দুই দিনের ধর্মঘটের কারণে বাস-ট্রাক বন্ধ থাকায় প্রায় ৭০০ রিকশা-ভ্যানে বিএনপির রংপুর বিভাগীয় গণসমাবেশে যোগ দিচ্ছেন নীলফামারীর সৈয়দপুরের হাজার হাজার নেতা-কর্মীরা। এই বহরটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন সৈয়দপুর জেলা বিএনপির নেতা আব্দুল খালেক ও উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক লোকমান হাকিম। শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সৈয়দপুর কামারপুকুর, চিকলী ও খিয়ার জুম্মা নামক স্থান থেকে রংপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যানগুলো।

আব্দুল খালেক জানান, ৭০০ রিকশা-ভ্যানের বহরে সৈয়দপুরে বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড এবং পৌর বিএনপির শত শত নেতা-কর্মীরা যোগ দিয়েছেন। ৫০ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিতে প্রায় দুই ঘণ্টা সময় লাগবে।

এদিকে পরিবহন ধর্মঘটের কারণে সমাবেশে আসতে নানা ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন সমাবেশে আসা নেতা-কর্মীরা। যে যেভাবে পেরেছেন সমাবেশস্থলে এসেছেন। সমাবেশের আগের রাতে রংপুর কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে এসেই নিচে খড় বিছিয়ে গায়ে পাতলা কম্বল জড়িয়ে শুয়ে পড়েছেন ক্লান্ত অনেকেই।

সমাবেশ মাঠে শুয়ে থাকা পঞ্চগড় থেকে আসা স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী ওয়াদুদ বলেন, বাড়ি থেকে অনেক ভেঙে ভেঙে এসেছি। সৈয়দপুর পর্যন্ত আর কোনো গাড়ি নিয়ে আসেনি। একটা সিএনজি পেলেও সেটি বেশি দূর আসেনি। ২০ কিলোমিটার রাস্তা হেঁটে এসেছি। এসে এখানে শুয়ে পড়ছি। তিনি বলেন, আমার জীবনের বিনিময়ে হলেও এ সরকারের পতন চাই। আমার দেশনেত্রীর মুক্তি চাই।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে। মহাসড়কে নসিমন, করিমন ও থ্রি-হুইলারসহ অবৈধ যান চলাচল বন্ধ এবং রংপুর-কুড়িগ্রাম সড়কে ‘প্রশাসনিক হয়রানি’ বন্ধের দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পরিবহন সংগঠন। ধর্মঘট চলবে আজ শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। পরিবহন ধর্মঘটের কারণে রংপুর বিভাগের আট জেলার যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *