আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেন খালেদা জিয়া’

ফাইল ছবি
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।
আজ সোমবার ৩১ অক্টোবর রাজবাড়ী মহিলা দলের নেত্রী সোনিয়া আক্তার স্মৃতির জামিনের পর সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার মামলা রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করা হবে।

এদিকে এর প্রতিউত্তরে দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, রাজপথে রাজনীতির বিষয় ফয়সালা হবে। তবে মামলার বিষয়টি হাইকোর্টে নিষ্পত্তি হবে। এমন কথা বলা আইনের শাসনের লঙ্ঘনের শামিল

আরও পড়ুন 👉👇
স্বপ্নের সেমিফাইনালে উঠতে ভারত-পাকিস্তানকে হারাতেই হবে টাইগারদের
চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো মূল পর্বে দুটি ম্যাচে জয়লাভ করেছে বাংলাদেশ। প্রথমে নেদারল্যান্ডস এবং সর্বশেষ গতকাল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে জয়লাভ করেছে টাইগাররা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের লক্ষ্য এ পর্যন্ত থাকলেও নাটকীয় কিছু হলে সেমিফাইনালে উঠে যেতে পারে বাংলাদেশ। শুনতে অবাক লাগলেও এখনো সম্ভাবনা আছে বাংলাদেশ দলের সেমিফাইনালে খেলা।

তবে সেই পথ যে পাড়ি দেওয়া এক প্রকার অসম্ভব। কারণ সেমিফাইনালে উঠতে হলে আগামী দুটি ম্যাচ ভারত এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে অবশ্যই জয়লাভ করতে হবে সাকিব বাহিনীকে। এই মুহূর্তে গ্রুপ-২তে ৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে দক্ষিণ আফ্রিকা। সমান ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় পজিশনে আছে ভারত ও বাংলাদেশ। ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বর জিম্বাবুয়ে। ৩ ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে পাকিস্তান।

এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ দুটি ম্যাচ আছে পাকিস্তান ও নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে। এই দুই ম্যাচের একটিতে জয় ধরলে ৫ ম্যাচ শেষে প্রোটিয়াদের পয়েন্ট হবে ৭। বাংলাদেশের পরের দুটি ম্যাচ আছে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে। টাইগারদের সেমিফাইনালে খেলতে হলে উভয় ম্যাচেই জয় পেতে হবে।

টাইগাররা যদি পাকিস্তানের বিপক্ষে হারে এবং পাকিস্তান নিজেদের আরেক ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হারায় তখন বাবর আজমদের পয়েন্ট হবে ৫ ম্যাচে ৬। ভারত যদি বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়েকে হারায় তখন কোহলিদের পয়েন্ট হবে পাঁচ ম্যাচে ৮। তখন ৮ ও ৭ পয়েন্ট নিয়ে সেমিতে যাবে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

তবে বাংলাদেশ যদি ভারত-পাকিস্তানকে হারাতে পারে। তখন টাইগারদের পয়েন্ট হবে পাঁচ ম্যাচে ৮। সেক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে সেমিতে যাবে টাইগারা। এই সমীকরণ শুধুই কল্পনা বিলাস মাত্র। কারণ ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ে বাজি ধরা পাগলামি! যদি বাংলাদেশ পরের দুই ম্যাচে পাকিস্তানের সঙ্গে হেরে ভারতকে হারায় আর ভারত জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয় পায় তখন ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের পয়েন্ট সমান ৬ হবে।

সেক্ষেত্রে রান রেটে এগিয়ে থাকা দলটি দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে সেমিতে যাবে। কাজেই বলাই যায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারত হারায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হলো টাইগারদের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারত জয় পেলে ৩ ম্যাচ শেষে ভারতের হতো ৬, বাংলাদেশের ৪, দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের ৩ করে। পাকিস্তানের ২। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ পরের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হারলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় পেলে পয়েন্ট হতো ৫ ম্যাচে ৬।

এদিকে ভারত শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়েকে হারালে কোহলিদের হতো ৫ ম্যাচে ১০। পাকিস্তান পরের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারালে বাবর আজমদের পয়েন্ট হতো ৫ ম্যাচে ৪। তখন ১০ পয়েন্ট অর্জন করা ভারতের সঙ্গে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সেমিতে যেত বাংলাদেশ। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের হারে সমীকরণ কঠিন হয়ে গেল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *