‘বাসে যাত্রীর ওপর বমি করে লাখ টাকা চু’রি

‘নারায়ণগঞ্জের মৌমিতা পরিবহনের একটি বাসে আবারো চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার এই ঘটনায় এক যাত্রীর দেড় লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়। ভুক্তভোগী যাত্রীর নাম সুমন রেজা। আজ রোববার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে ফতুল্লা খান সাহেব আলী স্টেডিয়ামের সামনে লিংক রোডে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ওইদিন রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। সুমন রেজা ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার নূর হোসেনের ছেলে।

এবারই প্রথম নয়। এমন ঘটনা এর আগেও ঘটেছে। ভুক্তভোগী সুমন রেজা বলেন, আমার মা অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি। হাসপাতালের বিল পরিশোধ করার জন্য আত্মীয়ের কাছ থেকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে ঢাকার সাইন্সল্যাব হতে মৌমিতা পরিবহনের একটি বাসে আসছিলাম। নারায়ণগঞ্জের জেলখানার মোড় আসার পথে বিকেল আড়াইটায় খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে আসার পর

পাশে বসা এক ব্যক্তি আমার ওপর বমি করে। ‘এসময় বাসের হেলপার এসে আমাকে দাঁড়াতে বলেন। আমি দাঁড়ানো মাত্রই বমি পরিষ্কারে কথা বলে কৌশলে প্যান্টের পকেট থেকে টাকা নিয়ে দ্রুত বাস থেকে নেমে যান ওই ব্যক্তি। বিষয়টি বাসের চালক ও হেলপারকে জানানোর পরও তারা বাসটি কিছু দূরে থামিয়ে আমাকে নামিয়ে দ্রুত চলে যায়।’

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রিজাউল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। বাসটি শনাক্ত করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এর আগে ৭ অক্টোবর মৌমিতা পরিবহনের বাসে যে চুরির ঘটনা ঘটেছিল, সেটাও ছিল বমি করে চুরি করা। তখন রনি নামে এক যাত্রীর এক লাখ টাকা চুরি করা হয়। ঘটনার পর মৌমিতা বাসের চালক ইমরান ও হেলপার রতন মোল্লাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *