কোহলি লিটনকে ব্যাট উপহার দিয়েছেন

‘নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ দলের বর্তমানের সেরা ব্যাটারদের একজন লিটন দাস। গত কয়েক বছরে নিজের মধ্য আমুল পরিবর্তন এনেছেন এই ক্রিকেটার। যার ফল পাচ্ছেন হাতেনাতেই। টাইগার ব্যাটিং লাইনআপের অন্যতম ভরসার নাম তিনি। সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে তার হাত ধরেই জয়ের আশা দেখছিল বাংলাদেশ। অ্যাডিলেডে ভুবেনেশ্বর-মোহাম্মদ শামির মতো বোলাররা অসহায় ছিলেন লিটনের ব্যাটিং তান্ডবের সামনে। লিটন একাই খেলেছেন ২৭ বলে ৬০ রানের ঝলমলে ইনিংস।

যদিও তার মারকুটে ইনিংসের পরও জয়ের দেখা পায়নি দল। তবে লিটনের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ হয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটার বিরাট কোহলি। ম্যাচ শেষে লিটনকে খুশি হয়ে একটি ব্যাট উপহার দিয়েছেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুস।

লিটনের ব্যাটিং নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে এমনটা জানান তিনি। জালাল ইউনুস বলেন, ‘দেখেন লিটন দাস একজন ক্লাসিক ক্রিকেটার। আপনি শটগুলো দেখেন সে ক্লাসিক শট খেলে যেকোনো ফরম্যাটেই। টেস্ট, ওয়ানডে সে ভালো খেলে ইদানিং সে টি-টোয়েন্টিতেও ভালো খেলছে। খুব খুশি হয়েছি। আর আমরা যখন বসে ছিলাম ডাইনিং হলে দেখলাম ভিরাট কোহলি এসে তাকে একটা ব্যাট উপহার দিয়ে গেল তাকে। অবশ্যই এটা অনেক বড় অনুপ্রেরণা।’ দুটি অভিযোগ নিয়ে আইসিসির কাছে যাবে বিসিবি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ শেষ হলেও উত্তাপ শেষ হয়নি। কারণ এই ম্যাচে বেশ কয়েকটি বিতর্কিত ঘটনা ঘটেছে। যে সকল ঘটনার বলি হতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। যার ফলস্বরুপ ৫ রানের হার নিয়ে সেমিফাইনাল স্বপ্ন শেষ হয়েছে টাইগারদের।
ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে বৃষ্টি শুরু হওয়ার ঠিক আগের ওভারে অক্ষর প্যাটেলের বলে একটি ফেক ফিল্ডিং হয়েছিল বলে বিশ্বাস

বাংলাদেশ দলের। তৎক্ষণাৎ আম্পায়ারকে অভিযোগ করেন নাজমুল হোসেন শান্ত, তবে সে অভিযোগ নিয়ে কোনো ভ্রুক্ষেপই করতে দেখা যায়নি মাঠের আম্পায়ারদের। পেনাল্টি রান দিলে স্কোর বোর্ডে যোগ হতো ৫ রান। এছাড়াও বাংলাদেশকে ভেজা মাঠে খেলতে বাধ্য করা হয় বলেও অভিযোগ রয়েছে। ঠিক এই দুই ইস্যুতে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির কাছে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ জানাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

অভিযোগ জানানোর বিষয়টি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস নিশ্চিত করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে ভেজা মাঠ, ফেইক ফিল্ডিং ও আম্পায়ারিং নিয়ে আইসিসির পরবর্তী সভায় আলোচনা তুলতে চায় বাংলাদেশ। আপনারা জানেন এই অস্ট্রেলিয়াতেই মিটিং রয়েছে সামনে। তবে একটা জিনিস দিন শেষে আম্পায়ার এবং ম্যাচ রেফরির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। অবশ্য মাত্রই ভুল হয়।’

এর আগে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান তানভীর আহমেদ টিটু গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি নিজেদের মধ্যে। অভিযোগ করার সুযোগ আছে কি না দেখছি। বর্তমান যে নিয়ম তাতে এই ব্যবস্থা এখন সম্ভবত নেই। তারপরও বিষয়টি আমরা দেখছি।’

গতকাল অ্যাডিলেডে ম্যাচ শেষে মিক্সড জোনে দাঁড়িয়ে নুরুল হাসান সোহান বলেছিলেন, ‘মাঠ যে ভেজা, আপনারাও দেখছেন বাইরে থেকে, আমরাও দেখছি। ইভেনচুয়ালি আমার কাছে মনে হয় যে, যখন আমরা কথা বলি… একটা ফেক থ্রোও ছিল। যেটায় ৫ রান পেনাল্টি হয়তো হতে পারত। যেটা আমাদের দিকে আসতে পারত। দুর্ভাগ্যবশত সেটাও আসেনি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *