পক্ষপাতমূলক আম্পায়ারিং নিয়ে আইসিসির কাছে অভিযোগ করবে বিসিবি

ছবি সংগ্রহীত
চলমান বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের ২৩তম ম্যাচে গতকাল বুধবার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ-ভারত। ম্যাচটিতে ৫ রানে হারে টাইগাররা। খেলা শেষে বাংলাদেশ দলের আক্ষেপ, প্রাপ্য ৫টি রান তারা পায়নি। ‘ফেইক ফিল্ডিংয়ের’ অভিযোগ তোলা হলেও পেনাল্টি দেয়া হয়নি ভারতীয় দলকে। এছাড়াও বাংলাদেশকে ভেজা মাঠে খেলতে বাধ্য করা হয় বলেও অভিযোগ করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

এই দুই ইস্যুতে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসিতে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ জানাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে ভেজা মাঠ, ফেইক ফিল্ডিং ও পক্ষপাতমূলক আম্পায়ারিং নিয়ে আইসিসির পরবর্তী সভায় আলোচনা তুলতে চায় বাংলাদেশ।

তবে এ নিয়ে অত সহজে অভিযোগ দেয়া যায় না বলে মনে করেন তিনি। এর আগে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান তানভীর আহমেদ টিটু গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি নিজেদের মধ্যে। অভিযোগ করার সুযোগ আছে কিনা দেখছি। বর্তমান যে নিয়ম তাতে এই ব্যবস্থা এখন সম্ভবত নেই। তারপরও বিষয়টি আমরা দেখছি।’

এদিকে বাংলাদেশের ইনিংস চলাকালীন ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি ফেইক থ্রো করেছিলেন। বল হাতে না নিয়েই থ্রো করার ভঙ্গি করেন। আম্পায়ার বিষয়টি খেয়াল না করায় পেনাল্টি হিসেবে বাড়তি ৫ রান পায়নি টাইগাররা। এটি নিয়ে ম্যাচ শেষে আক্ষেপ করেছেন নুরুল হাসান সোহান।

মিক্সড জোনে দাঁড়িয়ে এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটার বলেছেন, ‘মাঠ যে ভেজা, আপনারাও দেখছেন বাইরে থেকে, আমরাও দেখছি। ইভেনচুয়ালি আমার কাছে মনে হয় যে, যখন আমরা কথা বলি… একটা ফেক থ্রোও ছিল। যেটায় ৫ রান পেনাল্টি হয়তো হতে পারত। যেটা আমাদের দিকে আসতে পারত। দুর্ভাগ্যবশত সেটাও আসেনি।’

এদিকে উইকেটে থাকা ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত তাৎক্ষনিক অভিযোগ করেন আম্পায়ারের কাছে। তবে আম্পায়ার সেটি আমলে নেননি। আম্পায়ার শান্তকে জানান, এরকম কিছু তাদের চোখে পড়েনি। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় ভিডিও ক্লিপে দেখা গেছে ফেক থ্রো করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *