‘বাংলাদেশ স্মার্ট ক্রিকেট না খেলে প্রতি বলে ছক্কা মারতে চেয়েছে: গাভাস্কার’

বৃষ্টির পর স্মার্ট ক্রিকেট খেলার বদলে বাংলাদেশ প্রতি বলে ছয় হাঁকানোর চেষ্টা করতে থাকে বলে মন্তব্য করেছেন সুনীল গাভাস্কার। ইন্ডিয়া টুডে’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এমন মন্তব্য করেন। বৃষ্টির আগে ৭ ওভারে বাংলাদেশের স্কোর ছিল বিনা উইকেটে ৬৬ রান। সেই দলই বৃষ্টির পরে ৯ ওভারে ৬ উইকেটে টেনেটুনে ৭৯ রান তুলতে পেরেছে। তাই ৫ রানে এই হারের পেছনে বাংলাদেশি ব্যাটারদেরই দায় দেখছেন সুনীল গাভাস্কার।

ভারতের কিংবদন্তি ওপেনার মনে করছেন, বাংলাদেশ স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে পারেনি। ‘ইন্ডিয়া টুডে’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, বৃষ্টির পর স্মার্ট ক্রিকেট খেলার বদলে বাংলাদেশ প্রতি বলে ছয় হাঁকানোর চেষ্টা করতে থাকে। ছোট বাউন্ডারি দিয়ে বল মারার চেষ্টা করেছে। কিন্তু ওই সময় বড় শটকে আয়ত্তের মধ্যে রেখে বুদ্ধিমত্তার সাথে বোলিং করেছে ভারতীয় বোলাররা। যে কারণে যেসব শট ছয়

হতে পারত, সেগুলো লং অন বা মিড উইকেট বাউন্ডারিতে ক্যাচ হয়ে যায়। বৃষ্টির পর খেলা শুরু হলে অষ্টম ওভারে লিটন দাস আর দশম ওভারে নাজমুল হোসেন আউট হন। তার পরই ভেঙে পড়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং। ম্যাচটির ফলাফল নির্ধারণে বৃষ্টির ভূমিকার কথাও মেনে নিচ্ছেন গাভাস্কার।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, অবশ্যই বৃষ্টির ভূমিকা ছিল। বৃষ্টির সময় ওদের রান ছিল ৭ ওভারে ৬৬। ওভারপ্রতি ৯ রানের বেশি। হাতে ১০ উইকেট থাকায় তারা ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু বৃষ্টির পর লক্ষ্য যখন ৩৩ রান কমে গেল, তখন মনে হয় ওরা কিছুটা ঘাবড়ে যায়। অথচ আস্কিং রানরেট তখন প্রায় শুরুর মতোই ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *