‘যৌ’তুকে পাওয়া গাড়ি চালাতে গিয়ে পরিবারের ৫ জনকে চাপা, নি’হত ১

‘শ্বশুরবাড়ি থেকে ‘পাওয়া গাড়ি পেয়েই টেস্ট ড্রাইভে নেমে পড়েছিলেন বর। কিন্তু সেই টেস্ট ড্রাই’ভই বড় বিপদ ডেকে আনলো। গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চাপা দেয় পরিবারের পাঁচ সদস্যকে। এ সময় ঘটনাস্থ’লেই একজনের মৃ’ত্যু হয়। ঘটনা’টি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

খবর বলা হয়, ওই বরের নাম অরুণ কু’মার। তিনি উত্তরপ্রদে’শের অকবরপুরের বাসিন্দা। শ্বশুরবাড়ি থেকে যৌতু’কে গাড়ি পেয়েছিলেন তিনি। বিয়ের অনুষ্ঠান ঘিরে অরুণের বাড়িতে তখন হইহই চলছে। তার উপর নতুন গাড়ি বাড়িতে আসায়, সকলেরই উৎসাহ-উদ্দীপনা ছিল তুঙ্গে। চাবি হাতে পেয়েই অরুণ গাড়িতে চালকের আসনে গিয়ে বসেন। তারপর অ্যাক্সিলারেটরে চাপ দিতেই

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। পাশেই তখন দাঁড়িয়ে’ছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা। অরুণের গাড়ি নিয়’ন্ত্রণ হারিয়ে সোজা চাপা দেয় পরিবারের পাঁচ সদস্যকে। তখন দশ বছরের এক কিশোরসহ গুরুতর আহত হয় পাঁচজন। তাদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু

হয়। পুলিশ জানায়, যৌতুকে অরুণ গাড়ি পে’য়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু তিনি চালাতে জানতেন না। তারপরেও উৎসাহের বশে গাড়ি চালানোর ঝুঁকি নিয়ে ফেলেন। আর তাতেই দুর্ঘ’টনা ঘটে। স্টেশন হাউস অফিসার রণবিজয় সিংহ বলেন, আমরা অভিযু’ক্তকে হেফা’জতে নিয়েছি। অভি’যোগ হাতে পেলেই অরু’ণের বি’রুদ্ধে বেপরো’য়া গাড়ি চালানো, অনিচ্ছাকৃত খুনে’র মাম’লা দা’য়ের করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *