সাকিব সবসময়ই নাইট রাইডার্সের পরিবারের অংশ ছিল। তাকে কম টাকায় নেওয়ার জন্য আমরা অপেক্ষা করছিলাম : কেকেআর

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে ধারাবাহিক ভাবে খেলেছেন সাকিব আল হাসান। ২০১১ সাল থেকে আইপিএলের নিয়মিত মুখ সাকিব। ২০১৭ সাল পর্যন্ত খেলেছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সে (কেকেআর)। দুইটি শিরোপা জিতেছেন সেই দলের হয়ে। ২০১৮ ও ২০১৯ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেন এই অলরাউন্ডার। তবে ২০২১ সালে আবারও ফেরেন কলকাতায়।

ওই টুর্নামেন্টে আবারও ফাইনালে ওঠে কলকাতা। তবে এর পরের বছর তাকে ছেড়ে দেয় কেকেআর। জাতীয় দলের খেলা থাকার কারণে ২০২২ আইপিএলে দল পারনি তিনি।

তবে এবার আবারো আইপিএলে খেলার সুযোগ পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। সাবেক দল কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলবেন তিনি। প্রথম ডাকে তাকে কেউ দলে না নিলেও দ্বিতীয় ডাকে সাকিবকে দলে নয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। মূলত সাকিবকে কম দামে পেতেই এমন করেছে কলকাতা। এমনটাই জানিয়েছেন কলকাতা নাইট রাইডার্স এর প্রধান নির্বাহী ভেঙ্কি মাইশো। কলকাতার ফেসবুক পেজে এক ভিডিও বার্তায় সাকিবকে নিয়ে তিনি বলেন,

“সাকিব সবসময়ই নাইট রাইডার্সের পরিবারের অংশ ছিল। ২০১১ সালে আমি যখন প্রথম অকশন করি তখন তাকে দলে নেওয়ার সুযোগ হয়েছিল। সে আমাদের দুটি চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ ছিল”।

“আমরা যখন ২০২১ মৌসুমে ফাইনালে গিয়েছিলাম, তখনও ঐ স্কোয়াডের সদস্য ছিল। ও আমাদের জন্য কিছুটা সৌভাগ্য বয়ে নিয়ে এসেছে বলা যায়। সাকিব খুবই পেশাদার। সে সব সময়ই পারফর্ম করেছে। আমরা তাকে শেষদিকে নিতে পেরে আনন্দিত।”
তবে প্রথম ডাকে না নিয়ে কেন দ্বিতীয় ডাকে সাকিবকে দলে নিয়েছে তার কারণও জানিয়েছেন ভেঙ্কি মাইশোর। তিনি জানিয়েছেন পর্যাপ্ত টাকা না থাকার কারণে সাকিবকে দ্বিতীয় ধাপে নিয়েছে তার দল।

“আমরা জানতাম না আমাদের পর্যাপ্ত টাকা ছিল কি না। যে কারণে তাকে পেতে আমাদের শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। তবে সাকিবকে দলে নিতে পেরে উচ্ছ্বসিত আমরা।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *